অভিনেতা কে এস ফিরোজ মা’রা গেছেন !

ছোট পর্দার দর্শকপ্রিয় মুখ কে এস ফিরোজ আর নেই। বুধবার সকাল ৬টা ২০ মিনিটে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) তিনি শেষ নিঃ’শ্বাস ত্যা’গ করেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন…)।খবরটি চ্যানেল আই অনলাইনকে নিশ্চিত করেন নাট্য নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরী। তিনি জানান, প্রথমে নিউমোনিয়ার লক্ষণ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি। এরপর জ্ব’র ও শ্বাস’কষ্ট দেখা দেয়।

এই নির্মাতা বলেন, উনার মৃ’ত্যু মেনে নিতে পারছি না। আমার নির্দেশনায় একশোর বেশি নাটকে অভিনয় করেছেন তিনি। সকাল থেকেই মন ভালো নেই।এদিকে তার মেয়ে ব্যারিস্টার রাবেয়া জাহান ফিরোজ গণমাধ্যমকে জানান, বাদ জোহর জানাজার পর বনানী কবরস্থানে সেনাবাহিনীর জন্য নির্ধারিত স্থানে কবর দেওয়া হবে বাবাকে।

মঞ্চ দিয়ে অভিনয়ে পা রাখেন ফিরোজ। নাট্যদল ‘থিয়েটার’-এর সাথে সম্পৃক্ত হয়ে কাজ করেছেন ‘সাত ঘাটের কানাকড়ি’, ‘কিং লিয়ার’ ও ‘রাক্ষসী’ মঞ্চনাটকে।বাংলা নাটকের পাশাপাশি সিনেমাতেও অভিনয় করেন তিনি।বরিশালে জন্ম নেওয়া এই অভিনেতা ১৯৬৭ সালে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে কমিশন পদে চাকরি পান। ১৯৭৭ সালে মেজর পদে চাকরি থেকে অব্যাহতি নেন। কে এস ফিরোজের প্রথম সিনেমা ‘লাওয়ারিশ’। আরও অভিনয় করেছেন ‘শঙ্খনাদ’, ‘বাঁশি’, ‘চন্দ্রগ্রহণ’ ও ‘বৃহন্নলা’তে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *